এবার বিয়ের পিড়িতে মেহেদী হাসান


বিয়ের পিড়িতে মেহেদী হাসান
বিয়ের পিড়িতে মেহেদী হাসান

করোনার এ সময়ে বিয়ের ধুম পড়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেট পাড়ায়। এই তালিকায় এবার নাম লেখালেন তরুণ অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান।

করোনার মধ্যে ক্রিকেট নেই। অনুশীলনও প্রায় চারমাস বন্ধ ছিল। অখন্ড অবসর। এই সময়টাকেই জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজটি সেরে ফেলার জন্য বাছাই করেছেন তরুণ ক্রিকেটাররা।

এর মধ্যে দ্বিতীয়বার বিয়ে করলেন মোসাদ্দেক হোসেন। তার পরপরই বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন নাজমুল হাসান শান্ত, সাদমান ইসলামও। সর্বশেষ স্পিন অলরাউন্ডার মেহেদী হাসানও বিয়ে করে ফেললেন।

রোববার (২৬ জুলাই) সন্ধ্যায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয় খুলনার এ তরুণ অল রাউন্ডারের। খুলনা শহরের বয়রায় মেহেদীর মামার বাসায় ঘরোয়া পরিবেশে বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

মেহেদী হাসানের নববধুর নাম ঋতু। খুলনা সরকারি মহিলা কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী হিসেবে তিনি। আগে থেকে কোনো সম্পর্ক নয়, সম্পূর্ণ পারিবারিকভাবেই বিয়ে করেছেন ২৫ বছর বয়সী মেহেদী।

মেহেদী বলেন, ‘করোনার কারণেই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা বড় করা হয়নি। দুই পরিবারের একেবারেই ঘনিষ্ঠজনদের নিয়ে বিয়ের কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। করোনা পরবর্তী সময়ে বড় করে অনুষ্ঠান করার ইচ্ছা আছে। নতুন পথচলায় সবাইকে পাশে পেতে চাই। সবার দোয়া চাই।’

১৯ জুলাই থেকে স্বল্প পরিসরে ক্রিকেটাররা বিভিন্ন স্টেডিয়ামে অনুশীলন করে যাচ্ছেন। রানিং এবং স্কিল ট্রেনিংই করছেন তারা। খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে মেহেদী হাসান মিরাজ এবং নুরুল হাসান সোহানের সঙ্গে অনুশীলন করেছেন মেহেদী হাসানও। এরই মধ্যে বিয়ের কাজ শেষ করলেন।

এমনকি বিয়ের পরদিনও আবু নাসের স্টেডিয়ামে অনুশীলন করতে চলে এসেছেন ২৫ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডার।