হরিষে বিষাদ!




বাংলা ব্যকরণে হরিষে বিষাদ বাগধারাটির সাথে আমরা সবাই পরচিত। এই বাগধারাটি অর্থ আনন্দপূর্ণ পরিবেশে দুঃখের আগমন। হরহামেশাই এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হই আমরা। এরকমই এক ঘটনা ঘটেছে ডেনভারের এক এফবিআই এজেন্টের ভাগ্যে।
ওই সময়ে তিনি অফ ডিউটি ছিলেন। নাইট ক্লাবে গিয়েছিলেন একটু আনন্দ করবেন বলে। সেখানে আবার ডান্স ফ্লোর মাতিয়ে রেখেছিলেন একাই। হাততালি আর ক্যামেরার ঝলকানিতে তাঁর পায়ের জাদু যেন ক্রমশ বাড়ছিল। একটার পর একটা নতুন স্টেপ দেখিয়ে আরও হাততালি কুড়োতে যাওয়াই কাল হল তার।
আরও হাততালি পেতে একটা সময়ে তিনি ব্যাকফ্লিপ দিয়ে আরও ভাল কিছু নাচের স্টেপ দেখাতে যান। আর তখন পিস্তলটা পকেট থেকে নীচে পড়ে যায়। মেঝে থেকে পিস্তল তুলে নিতে গেলে গুলিও চলে যায়। সামনে দাঁড়িয়ে থাকা এক ব্যক্তির পায়ে লাগে গুলি।
পুলিশ জানিয়েছে, ততক্ষণে ডান্স ফ্লোরের আনন্দ আতঙ্কে পরিণত হয়েছে। যাঁরা হাততালি দিচ্ছিলেন তাঁরা ভয়ে দৌড়তে শুরু করেন।


গুলিটি একজনের পায়ের নিচের দিকে বিদ্ধ হয় জানিয়ে ডেনভার পুলিশের মুখপাত্র মারিকা পুটনাম জানিয়েছেন।
ওই এফবিআই এজেন্টের পরিচয় প্রকাশ করেনি পুলিশ। তাকে গ্রেপ্তারও করা হয়নি।
ঘটনার সময় তিনি দায়িত্বরত ছিলেন না বলে পুলিশ কর্মকর্তা পুটনাম জানান। তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ আনা হবে কি না সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবে ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নির দপ্তর।