মোরগের দাম লাখ টাকার বেশি!



প্রতি বছর ভারতের কেরালার কোট্টায়ামের পোনপল্লি সেন্ট জর্জ জ্যাকোবিট সিরিয়ান অর্থোডক্স চার্চে প্রতি বছর মোরগ নিলামে তোলা উৎসব পালিত হয়। এবারও উৎসবের অংশ হিসাবে রুটি ও মোরগ দান করে স্থানীয়রা।

নিলামে তোলা সেইসব মোরগগুলো স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি দামে বিক্রি হয়। সাধারণত সবচেয়ে সুন্দর ও বড় আকারের মোরগটিকেই রেখে দেয়া হয় নিলামে তোলার জন্য।

এটি স্থানীয়দের কাছে ঐতিহ্যবাহী একটি প্রথা ও উৎসব। নিলামে সবোর্চ্চ দাম ওঠা মোরগটিকে রেখে বাকি সব মোরগ রান্না করে সাধারণের মাঝে বিলিয়ে দেয়া হয়।

দানে পাওয়া এসব মোরগ রান্না করে রুটির সঙ্গে সাধারণ মানুষদের ভোজ উৎসব করা হয়। তবে এদের মধ্যে সবচেয়ে উৎকৃষ্ট ও সুন্দর মোরগটিকে নিলামে তোলা হয়। উৎসবে অংশগ্রহণকারীরা এ মোরগটিকে ‘পন্নুম কোঝি’ বলে।

সেই প্রথা অনুযায়ী এবারও নিলামে ওঠা সর্বোচ্চ দামের মোরগটি বিক্রি হয়েছে এক লাখ দশ হাজার টাকায়! যা আগের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার।

একটি প্রতিবেদনে পত্রিকাটি প্রকাশ করে, এবার নিলামে তোলা ‘পন্নুম কোঝি’কে কেনেন মনোজ জোসেফ নামে এক ব্যবসায়ী। তিনি মোরগটির দাম এক লাখ ১০ হাজার টাকা হাঁকালে এর ওপরে আর কেউ যেতে পারেননি।

১৮ বছর আগে কেরালার এই চার্চ সংলগ্ন এলাকার এক নারীকে বিয়ে করেন কোট্টায়ামের বাসিন্দা মনোজ। এরপর থেকে প্রতি বছর এই নিলামে অংশ নিয়ে আসেছেন তিনি।

জানা গেছে, এর আগের উৎসবের মোরগটিও ৬০ হাজার টাকায় কিনে নিয়েছিলেন মনোজ জোসেফ। গত ১৮ বছর ধরেই তিনি এই নিলামে অংশগ্রহণ করে আসছেন এবং প্রতিবারই তিনিই নিলামে জয়ী হন।