জোলিকে দেখে স্তন অপসারণ করছেন নারীরা




বেশ কয়েক বছর আগে ঝুঁকিপূর্ণ জিনের কারণে ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কায় উভয় স্তনই অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে অপসারণ করেছিলেন অস্কার বিজয়ী হলিউড অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। জোলির এই সীদ্ধান্ত প্রভাবিত করেছে অনেক নারীকে। এ ঘটনার পর অনেক নারীই তাদের স্তন অপসারণ করেছেন বলে দাবি করেছে সাম্প্রতিক একটি গবেষণা।
গবেষকগণ যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক এবং অস্ট্রেলিয়ার নিউ ওয়েলস শহরের ২০০৪ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে ঘটা এধরণের অস্ত্রোপচারের তথ্য সংগ্রহ করে এ তথ্য দেন। গবেষকরা দেখান যে জোলির অপারেশনের আগে ১ মিলিয়ন নারীর মধ্যে মাত্র ৩ দশমিক ৩ শতাংশ নারী এ ধরনের অস্ত্রোপচার করতেন। তবে জোলির ঘোষণার পর এ সংখ্যা দ্বিগুণ অর্থাৎ ১ মিলিয়নে ৬ দশমিক ৩ শতাংশে পৌঁছেছে।
জনপ্রিয় অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির মা স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৫৬ বছর বয়সে মারা গিয়েছিলেন। মায়ের সেই ক্যানসারের জিন জোলির শরীরে ধরা পড়ার পর চিকিৎসকেরা বলেন, তাঁর স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা ৮৭ শতাংশ এবং ডিম্বাশয়ের ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা ৫০ শতাংশ। এ কারণেই জোলি ২০১৩ সালে এই সাহসী সিদ্ধান্ত নেন।
এক বিবৃতিতে এই গবেষণার অন্যতম গবেষক নিউইয়র্ক শহরের ভিল কর্নেল মেডিসিনে অধ্যাপক আর্ট সেদ্রাকান বলেন, ‘এমনিতেই তারকাদের যেকোন পদক্ষেপ সাধারণ মানুষের উপর বেশ প্রভাব ফেলে। জোলির এই সীদ্ধান্ত বোলোতে গেলে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনে দিয়েছে। সুতরাং আমাদের এই দিকটাতে গুরুত্ব দিতে হবে।’

উল্লেখ্য, গবেষণায় শুধুমাত্র ২০০৪ থেকে ২০১৪, এই ১০ বছরের তথ্য দেয়া হয়েছে। তবে ২০১৫ সালের পর এধরণের অপারেশনের পরিমাণ আরও বেড়েছে।