স্বাদ বদলে চিলি-টমেটো ক্র্যাব কারি




চিলি-টমেটো ক্র্যাব কারি; রেসিপিটির নাম দেখেই আমাদের অনেকের মনে একটু মিশ্র প্রতিক্রিয়া জাগতে পারে। তবে স্বাদ বদলের জন্য এমন কিছু রেসিপি প্রস্তুত করলে মন্দ হয় না।

আসুন দেখে নেই স্বাদ বদলে চিলি-টমেটো ক্র্যাব কারি তোৈরি করতে কি কি লাগছে;

উপকরণ:
ক্র্যাব (কাঁকড়া) – ৫০০ গ্রাম
পেঁয়াজ বাটা – ২ টেবিল চামচ
শুকনো মরিচ বাটা – ১/২ চা চামচ (ঝাল বেশি খেলে পরিমাণ বাড়িয়ে নিতে পারেন)
রশুন বাটা – ১/৩ চা চামচ
আদা বাটা – ১/২ চা চামচ
চিলি সস – ১ চা চামচ
টমেটো সস – ৩ টেবিল চামচ
ফিশ সস – ১ চা চামচ
কর্ণ ফ্লাওয়ার – আন্দাজ মত
লবন – স্বাদ মত
চিলি ফ্লেক্স – ১ চা চামচ
চিনি – স্বাদ মত (যদি প্রয়োজন হয়)
তেল – প্রয়োজন মত (আমি একবারে বেশি তেল ব্যাবহার না করে অল্প অল্প করে তেল নিয়েছি প্রয়োজন অনুযায়ী)

প্রণালি:
-প্যানে তেল গরম করে কেটে রাখা ক্র্যাব গুলো অল্প অল্প করে দিয়ে দিয়ে লাল করে ভেজে তুলে রাখুন। এক সাথে না ভেজে ধাপে ধাপে ভাজলে তেল কম লাগবে।
-ক্র্যাব ভাজা হয়ে গেলে সেই তেলেই পেঁয়াজ বাটা দিয়ে একটু ভেজে নিয়ে একে একে মরিচ বাটা, আদা-রশুন বাটা আর লবন দিয়ে কষিয়ে অল্প পানি দিতে হবে। তারপর দিয়ে দিতে হবে ভেজে রাখা ক্র্যাব গুলো।
-নেড়ে ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে মশলার সাথে। তারপর ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে ৫/৭ মিনিটের জন্য।
-তারপর দিয়ে দিন চিলি সস, টমেটো সস, ফিশ সস। একটু টেস্ট করে দেখুন, যদি সসের কারণে একটু বেশি টক লাগে, তবে একটু চিনি দিয়ে স্বাদটা ব্যালেন্স করে নিতে পারেন। -অল্প করে কর্ণফ্লাওয়ার গুলে মিশিয়ে দিন আর তারপর চিলি ফ্লেক্স দিয়ে নামিয়ে নিন।

টিপস:
ক্র্যাব কেটে পিস করে ভাল করে ধুয়ে নিন। এখন অবশ্য সুপার শপ গুলোতে পরিষ্কার করে প্যাকেটজাত ক্র্যাব কিনতে পাওয়া যায়। কিন্তু প্যাকেটজাত ক্র্যাবের চাইতে বাজার থেকে ফ্রেশ ক্র্যাব কিনে কষ্ট করে পরিষ্কার করে কেটে তা যদি রান্না করেন তবে তার স্বাদ হবে অতুলনীয় আর আপনার কষ্ট হবে ষোল আনা সার্থক । ঊত্তরার দিয়াবাড়িতে ক্র্যাবের পাইকারি ও খুচরা বাজার বসে প্রতিদিন। আপনার যদি মোটামুটি নির্দিষ্ট কোন মাছওয়ালা থাকে তবে তার কাছ থেকেও জেনে নিতে পারেন তাজা ক্র্যাবের খবর।
আপনি চাইলে বাটা আদা-রশুনের পরিবর্তে কুচোনো আদা-রশুন ব্যাবহার করতে পারেন। আর আপনি যদি ঝাল খাওয়ায় পারদর্শী হয়ে থাকেন তবে কিছু কুচোনো লাল মরিচ-ও দিতে পারেন। যেহেতু রান্নাটাতে বেশ কয়েক রকমের সস ব্যাবহার করা হবে, তাই লবণ দেওয়ার সময় ব্যাপারটা অবশই মাথায় রাখতে হবে।