এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল খেলেই যথেষ্ট



অলিভ অয়েল। জলপাইয়ের নির্যাস থেকে তৈরি এই তেল স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী বলে অভিহিত করা হয়। বর্তমানে গবেষকদের নানা গবেষণায় বেরিয়ে আসছে অলিভ অয়েল নানান গুণ।
যুক্তরাজ্যের মেডিকেল কনসালট্যান্ট ড. সারাহ ব্রুয়ার ও ডায়েটেশিয়ান জুলিয়েট কেলারের যৌথভাবে লেখা ‘ইট বেটার লিভ লঙ্গার’ শীর্ষক এক বইয়ে বলা হয়েছে, দিনে এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল খেলেই তাতে একই সঙ্গে স্ট্রোক ও ক্যান্সার দুই মারণ ব্যাধি থেকেই দূরে থাকা যাবে।
বইতে অলিভ অয়েলের এ প্রাণদায়ী বৈশিষ্ট্যের কথা দাবি করেছেন দুই বিশেষজ্ঞ। ব্রুয়ার ও কেলার বইটিতে আরো জানান, অলিভ অয়েলে ক্যালরির মাত্রা অনেক বেশি। প্রতি টেবিল চামচ অলিভ অয়েল থেকে ১০০ ক্যালরি পাওয়া যায়।
বইটিতে লেখকদ্বয় উল্লেখ করেন, ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে রান্নার অপরিহার্য অনুষঙ্গটিতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট রয়েছে, যা ক্যান্সার প্রতিরোধের পাশাপাশি আক্রান্তের দেহে ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধিকে প্রতিহত করে।
একই সঙ্গে বিশ্বের অন্যতম সবচেয়ে মারাত্মক ঘাতক ব্যাধি স্ট্রোক প্রতিরোধের ক্ষেত্রেও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে এটি। পাশাপাশি কোলেস্টেরল, উচ্চরক্তচাপ এবং বয়স-সংক্রান্ত ব্যাধিগুলো প্রতিরোধ এবং মস্তিষ্কের সক্ষমতা ধরে রাখার ক্ষেত্রেও অত্যন্ত কার্যকর ভূমিকা রাখে অলিভ অয়েলের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট।