প্রায় ৪৭১ কোটি টাকার কালো সোনা সাদা হলো


gold #paperslife

চট্টগ্রামে স্বর্ণমেলায় তিন দিনে প্রায় ৪৭১ কোটি টাকা বাজারমূল্যের ৯৪ হাজার ৬০ ভরি সোনা কর দিয়ে বৈধ বা সাদা করেছেন ব্যবসায়ীরা। এসব স্বর্ণ বৈধ করার জন্য ব্যবসায়ীরা কর দিয়েছেন ৯ কোটি ৪০ লাখ টাকা।

এছাড়া ৭৯ হাজার ৮৭৩ ভরি রুপা এবং ২৫৭ দশমিক ৫ ক্যারেট হীরা বৈধ করেছেন ব্যবসায়ীরা।

নগরের আগ্রাবাদ সিডিএ আবাসিকের পিএইচপি পেলিকান মেহজাবিন ভবনে মঙ্গলবার এ স্বর্ণমেলা শেষ হয়েছে।

স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের কাছে ঘোষণার বাইরে যে স্বর্ণ মজুত আছে, তা ঘোষণার জন্য এই মেলার আয়োজন করে আয়কর বিভাগ। মেলায় নিবন্ধিত স্বর্ণ ব্যবসায়ী সমিতির সদস্যদের অঘোষিত ও মজুত স্বর্ণ, স্বর্ণালংকার, কাট ও পলিশড ডায়মন্ড এবং রুপার ঘোষণার বিপরীতে কর পরিশোধ করে তা বৈধ করার সুযোগ দেওয়া হয়।

এ জন্য ভরিপ্রতি স্বর্ণে ১ হাজার টাকা, রৌপ্যের জন্য ৫০ টাকা এবং প্রতি ক্যারেট কাট ও পলিশড ডায়মন্ডের জন্য ৬ হাজার টাকা কর পরিশোধ করতে হবে।

চট্টগ্রাম কর অঞ্চল-৩–এর কমিশনার মো. মাহবুবুর রহমান জানান, সব মিলিয়ে ৫১০ জন ব্যবসায়ী ও ৫টি ফার্ম ১০ কোটি ৩১ লাখ টাকা কর দিয়ে স্বর্ণ, রৌপ্য ও হীরা সাদা করেছেন।

মঙ্গলবার মেলা ঘুরে দেখা যায়, স্বর্ণ সাদা করতে সকাল থেকেই ভিড় ছিল মেলা চত্বরে। নগর ও উপজেলার ব্যবসায়ীরা স্বর্ণ সাদা করতে ভিড় করেন মেলায়।

এর মাধ্যমে বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির সদস্যরাই কর দিয়ে অঘোষিত স্বর্ণ বৈধ করার সুযোগ পাচ্ছেন। এ কারণে যারা সমিতির সদস্য নন, তারাও এখন সমিতির সদস্য হওয়ার জন্য তৎপর।

জুয়েলারি সমিতির চট্টগ্রামের সভাপতি মৃণাল কান্তি ধর জানান, মঙ্গলবার এক দিনে প্রায় ৫০ জন ব্যবসায়ীকে নতুন সদস্য পদ দেওয়া হয়েছে।