টাঙ্গাইলে বিয়ের জন্য প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন


marriage

বিয়ে করার দাবি নিয়ে টাঙ্গাইলের সখীপুরে কথিত প্রেমিকের বাড়িতে দুই দিন ধরে অনশন করছেন প্রেমিকা।

তরুণীর দাবি, জসিম উদ্দিন দুই বছর আগে চাকরি নিয়ে মালদ্বীপ যান। সেখান থেকে ঢাকায় ওই তরুণীর সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন।

অভিযুক্ত ওই যুবকের নাম জসিম উদ্দিন। তার বাড়ি সখীপুর উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নে। এই ঘটনার কারণে বাড়িতে তালা দিয়ে পালিয়ে গেছেন ওই যুবক, তার মা ও ভাই-বোন।

এদিকে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সোমবার সখীপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন জসিম। জানান, তরুণী বাড়িটির রান্নাঘরে অবস্থান নিয়ে অনশন করছেন।

জসিম উদ্দিন জিডিতে উল্লেখ করেন, মুঠোফোনে ওই তরুণী বিয়ের দাবিতে বাড়িতে ওঠার হুমকি দেন ও পাঁচ লাখ টাকা দাবি করেন।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন জানান, মেয়েটি মামলা করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ওই তরুণী জানান, জসিম আগে একটি বিয়ে করে বউকে তালাক দিয়েছে। আমিও আগের স্বামীকে তালাক দিয়েছি। বিষয়টি আমাদের দুজনেরই জানা ছিল। মালদ্বীপ থেকে সে আমাকে ঢাকায় একটি বাসা ভাড়া নিতে বলে। দেশে এসেই সে আমার ভাড়া বাসায় গিয়ে ওঠে। ঈদে গ্রামের বাড়িতে গিয়ে কাবিন ও বিয়ে হবে বলে আমাকে জানায়।

এরপর হঠাৎ ঈদের আগের দিন জসিম আমাকে কোনো কিছু না বলেই পালিয়ে আসে জসিম। বন্ধ করে দেয় যোগাযোগও। তরুণী বলেন, ‘আমি বাধ্য হয়েই ওর বাড়িতে গিয়ে উঠেছি, আমার অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে।’