লুঙ্গি পড়ে করতে হলো অফিস



নিউজিল্যান্ড সিরিজের তিন ম্যাচে লিটন দাসের রান ছিল তিন। প্রতি ম্যাচে ১ রান করে। বাউন্সি পিচে নড়বড় লিটনের উপর তাই ভরসা হয়ত করতে পারেননি অনেকেই।

গত ১৭ই জুন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বিশ্বকাপেই পঞ্চম ম্যাচে এসে লিটন সুযোগ পান খেলার। ১৩৩ রানে তিন নম্বর উইকেট হিসেবে মুশফিকুর রহিম আউট, তখন মাঠে নামেন লিটন।

অনেকেই মনেই শঙ্কা ছিল, পারবে তো লিটন? আর এক শঙ্কাতেই অদ্ভুত এক কান্ড করে বসেছেন একজন।

বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলা চলার সময় যখন লিটন ব্যাটিং করছিলেন তখন একজন ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে বলেছিলেন, লিটন দাস ৮০ রান করলে তিনি লুঙ্গি পড়ে অফিস করবেন।

এমন এক স্ট্যাটাস কাল হয়েছে তার জন্য। কেননা, লিটন ৮০ রান পেরিয়ে করেছেন অপরাজিত ৯৪ রান। তাই শর্ত মতে তাকে অফিস করতে হবে লুঙ্গি পড়েই।

পরের দিন অফিসে গিয়ে তিনি দেখেন এক এলাহী কান্ড। সহকর্মীরা তাকে অফিসে প্রবেশ করতে দিচ্ছেন না। লুঙ্গি না পড়ে অফিসে ঢুকতে পারবেন না তিনি।

এমনকি একজন আবার লুঙ্গি নিয়ে এসেছিলেন, তাকে পড়ানোর জন্য। এমন এক বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতিতে, সহকর্মীদের চাপে অবশেষে তিনি লুঙ্গি পড়েন। এবং লুঙ্গি পড়েই অফিস করেন।

তার এমন কর্মকান্ড ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেন তারই এক সহকর্মী। মুহূর্তেই ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়।

ফেসবুকের বিভিন্ন পেইজে, গ্রূপে ছড়িয়ে পড়ে ভিডিওটি।

এমন এক কাজের জন্য হয়ত তিনি লজ্জিত। তবে, বাংলাদেশের যেকোনো ক্রিকেটারের উপর ভরসা না করার জন্য এরূপ শিক্ষা তার যে কাজে লাগবে তা বলাই বাহুল্য।

তার সাথে ঘটিত এমন ঘটনায় শিক্ষা পাবে অন্যরাও।

ভিডিওটি দেখুন :