হার্ডওয়্যার খাতে ব্যবসা জোরদার করতে চায় গুগল



অ্যালফাবেট নিয়ন্ত্রিত গুগল বিভিন্ন হার্ডওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের কাছে সফটওয়্যার সরবরাহ করে। তবে প্রতিষ্ঠানটি এসব হার্ডওয়্যার নির্মাতাদের সঙ্গে জোট বাঁধার চেয়ে নিজস্ব স্মার্টফোন ও অন্যান্য ডিভাইস ব্যবসা সম্প্রসারণের পরিকল্পনা নিয়েছে।
কয়েক বছর ধরে অনুসন্ধান ও সফটওয়্যারের পাশাপাশি হার্ডওয়্যার খাতে ব্যবসা জোরদারে কাজ করছে গুগল। সম্প্রতি স্পেনের বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে (এমডব্লিউসি- ২০১৮) গুগলের হার্ডওয়্যার বিভাগের প্রধান রিক অস্টেরলোহ বলেন, আমরা ভোক্তা ইলেকট্রনিকস পণ্যে সফল হতে গুরুত্ব দিচ্ছি।
বৈশ্বিক হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার ব্যবসা খাতের মধ্যে দূরত্ব ক্রমেই অস্পষ্ট হচ্ছে। মোবাইল সফটওয়্যার খাতে একচ্ছত্র আধিপত্য থাকলেও, হার্ডওয়্যার খাতে পিছিয়ে রয়েছে গুগল। বাধ্য হয়ে প্রতিষ্ঠানটি এখন হার্ডওয়্যার খাতে ব্যবসা জোরদারে গুরুত্ব দিচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে হার্ডওয়্যার নির্মাতাদের অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমের মতো সফটওয়্যার ব্যবহারের লাইসেন্স দিয়ে এসেছে গুগল। প্রতিষ্ঠানটি বর্তমানে স্মার্টফোনের পাশাপাশি স্পিকার, নোটবুক কম্পিউটারসহ বিভিন্ন হার্ডওয়্যার পণ্য তৈরি করছে।
২০১৬ সালের এপ্রিলে মটোরোলার সাবেক প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা রিক অস্টেরলোহকে হার্ডওয়্যার বিভাগের প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেয় গুগল। এরপর তার নেতৃত্বেই এসেছে গুগল ব্র্যান্ডের প্রথম পিক্সেল স্মার্টফোন। ডিভাইস বাজারে এ স্মার্টফোন ভালো সাড়া ফেলেছে। এরই ধারাবাহিকতায় পরে পিক্সেল ২ ও ২ এক্সএল উন্মোচন করে প্রতিষ্ঠানটি।
বৈশ্বিক স্মার্টফোন বাজারে গুগলের দখল সামান্যই। তবে স্মার্টফোনে বহুল ব্যবহূত অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েডের ডেভেলপার হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে প্রতিষ্ঠানটি।
রিক অস্টেরলোহ বলেন, স্মার্টফোন ব্যবসায় গুগলের ব্যাপক আগ্রহ রয়েছে। এ কারণে গত বছর ১১০ কোটি ডলার ব্যয়ে তাইওয়ানভিত্তিক এইচটিসির স্মার্টফোন ব্যবসার আংশিক অধিগ্রহণ করা হয়েছে। চুক্তির শর্ত অনুযায়ী, এইচটিসির স্মার্টফোন বিভাগে কর্মরত প্রায় দুই হাজার প্রকৌশলী গুগলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। এ টিমটি গুগলের স্মার্টফোন ব্যবসায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এছাড়া গুগলের ইন-হাউজ হার্ডওয়্যার বিভাগ এ অধিগ্রহণের সুফল পাবে। গুগলের অন্যান্য বিভাগকে সহযোগিতা করতে আমার কোনো বিধিনিষেধ নেই।
যার অর্থ দাঁড়াচ্ছে, এইচটিসি অধিগ্রহণের মাধ্যমে পাওয়া প্রকৌশলীরা ডিভাইস উন্নয়নের পাশাপাশি গুগলের রিসার্চ কিংবা অ্যান্ড্রয়েড বিভাগে কাজ করতে পারেন। এমনকি তারা ন্যাভিগেশন, ভার্চুয়াল রিয়েলিটি (ভিআর) ও আগমেন্টেড রিয়েলিটির (এআর) মতো বিশেষায়িত বিভাগেও কাজ করতে পারেন।
ডিভাইস ব্যবসার যেসব খাতে গুগল গুরুত্ব দিচ্ছে, কানেক্টেড হোম তার একটি। রিক অস্টেরলোহের হার্ডওয়্যার বিভাগের সঙ্গে স্মার্ট হোম স্পেশালিস্ট নেস্ট একীভূত হতে চলছে। চার বছর আগে গুগল এ প্রতিষ্ঠানটি কিনেছিল। এর আগে অ্যালফাবেটের অধীন একটি পৃথক কোম্পানি হিসেবে নেস্ট পরিচালিত হয়েছে। উত্তাপ, ধোঁয়া শনাক্তকরণ, হোম সিকিউরিটি সিস্টেম ও অ্যালার্ম সিস্টেমের জন্য নেটওয়ার্ক ডিভাইস বিক্রি করে নেস্ট।
নেটওয়ার্ক হোম ডিভাইসের মাইক্রোফোন গোপনীয়তা ও তথ্য সুরক্ষা প্রভাব নিয়ে অনেকের মধ্যে উদ্বেগ রয়েছে। তবে রিক অস্টেরলোহ জোর দিয়ে বলেন, গুগল বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে।