৯৮ বছর বয়সে করোনার বিপক্ষে যুদ্ধ জয়!



চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস এখন তাণ্ডব চালাচ্ছে ইউরোপে। ইতালি, স্পেনে প্রতিনিয়ত বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো ব্রিটেনেও আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এই ভাইরাস। এখন পর্যন্ত দেশটিতে ৮ হাজার ২২৭ জন।  এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪৩৩ জনের।

দেশটিতে আক্রান্তদের মধ্যে রয়েছেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের বিজয়ী নায়ক জ্যাক বাউডেন। বতর্মানে তার বয়স ৯৮ বছর। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের মতোই করোনাভাইরাসকেও জয় করলেন তিনি। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে পজেটিভ হওয়ার মাত্র তিন দিনের মধ্যেই তিনি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

গত ১৮ মার্চ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে পরীক্ষায় তার করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। এই মহান দাদু দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠেন এবং শনিবার বোল্টনে তার নিজের বাড়িতে ফিরে আসেন।

জ্যাকের কনিষ্ঠ পুত্র মার্ক (৫৮) বলেছেন যে, ‘তিনি বিদায় চিঠি লিখেছিলেন যখন ডাক্তাররা তাকে বলেছিলেন যে তার বাবা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আমি ভেবেছিলাম আমি আর তাকে দেখতে পাব না। আমি তাকে একটি সুন্দর চিঠি লিখেছিলাম। তবে শুক্রবারের মধ্যে নার্সরা বলেছে যে সে আশ্চর্যজনক কাজ করছে এবং তার বুকে হালকা হালকা সংক্রমণ হয়েছে।’

ডাক্তাররা তার এই ৯৮ বছর বয়সে করোনা জয়কে টেস্ট কেস হিসাবে নিতে চান। দেখতে চান কিভাবে তিনি এত দ্রুত সুস্থ হলেন। এটা অনন্য বয়স্ক রোগীদের চিকিৎসায় পথপ্রদর্শক হতে পারে।

জ্যাক বাউডেন পেশায় একজন ফার্মাসিস্ট ছিলেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় তিনি পেনিসিলিনের অত্যাবশ্যকীয় উৎপাদন তৈরির কাজ করেছিলেন।

মানবসভ্যতার ইতিহাসে এযাবৎকালের ভয়াবহতম সংঘাতের নাম দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ। জার্মান নাৎসি বাহিনীর আক্রমণে ১৯৩৯ থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত টানা ছয় বছর ইউরোপ, এশিয়া ও আফ্রিকা মহাদেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়া রক্তক্ষয়ী এ যুদ্ধে সাত কোটির বেশি সাধারণ মানুষের প্রাণহানি ঘটে।