করোনা টেস্টে নেগেটিভ হলেও অনুশীলন শুরু করবেন সাকিব


সাকিব আল হাসান


২৯ অক্টোবর ২০১৯, জুয়াড়িদের কাছ থেকে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার ঘটনা গোপন করার কারণে এক বছরের জন্য সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন সাকিব আল হাসান। সেই নিষেধাজ্ঞা ভাঙবে চলতি বছরের ২৯ অক্টোবর।

ধারণা করা হচ্ছে, শ্রীলঙ্কায় আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপেই মাঠে ফিরে আসবেন সাকিব আল হাসান। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের একান্ত ইচ্ছে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টেই খেলবেন সাকিব।

সে লক্ষ্যেই দীর্ঘ প্রায় চার মাসের বেশি সময় পর দেশে ফিরলেন সাকিব আল হাসান। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত পৌনে তিনটায় রাজধানীতে পা রেখেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

এক বছর ক্রিকেটের বাইরে। অনেক দিন ব্যাট ও বল ধরেননি, মাঠে ফেরার আগে আছে নিজেকে তৈরি করার তাড়া; কিন্তু নিষিদ্ধথাকাকালিন সময়ে জাতীয় দলের সান্নিধ্যে যাওয়ারও সুযোগ নেই। যা করার করতে হবে একা একা, নিজ উদ্যোগে।

সাকিব নিজেও তা জানেন। এ কারণেই একা একা অনুশীলনের তাগিদ অনুভব করছেন তিনি। সে লক্ষ্যে নিজেকে আবার তৈরি করতে বিকেএসপিতে নিবিড় অনুশীলনের সিদ্ধান্ত।

সাকিব দেশে ফেরার মুহূর্ত থেকে একটি কৌতুহলি জিজ্ঞাসা সবার মনে- কবে কখন বিকেএসপি যাবেন তিনি এবং অনুশীলন শুরু করবেন? তিনি কি কোয়ারেন্টাইনে দুই সপ্তাহ ঘরে একা থেকে তারপর প্র্যাকটিস শুরু করবেন?

এ প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন বিকেএসপির কোচ নাজমুল আবেদিন ফাহিম। তিনি জানিয়েছেন, সব কিছু ঠিক থাকলে ৫ সেপ্টেম্বর শনিবার বিকেএসপি যাবেন সাকিব এবং সেদিন থেকেই শুরু হবে তার আবার মাঠে ফেরার প্রস্তুতি।

নাজমুল আবেদিন ফাহিম জানিয়েছেন, বিকেএসপি যাবার আগে সাকিবকে অবশ্যই করোনা টেস্ট করাতে হবে। সেই টেস্টে নেগেটিভ রিপোর্ট আসলেই কেবল সাকিব যেতে পারবেন বিকেএসপিতে এবং সেখানেই চলবে তার নিবিড় অনুশীলন।