পা‌নি‌তে ভে‌সে থাকা ‘উভচর বাড়ি’



উভচর বাড়ি, জলে ও স্থলে টিকে থাকবে সমান তালে। সিরাজগঞ্জ সদরের রানীগ্রামেরএই বাড়ির মালিক মো. শহিদুল ইসলাম।

বন্যায় ভেসে থাকবে এমন বা‌ড়ির উ‌দ্বোধন শেষে সিরাজগঞ্জ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের হলরুমে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ মো. আব্দুল হান্নান খানের সভাপতিত্বে এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বেসরকারি সংস্থা সার্পের নির্বাহী প্রধান মো. শওকত আলী।

জানা গে‌ছে, উভচর বাড়ি তৈরীর এ প্রযুক্তি বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো পরিচিত পেতে যাচ্ছে। এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য হলো বাংলাদেশে বন্যাক্রান্ত জনগোষ্ঠীর আর্থিক ও সামাজিক ক্ষতির প্রতিকার।

এই বাড়ির সুবিধা হলো বন্যার পানিতে এটি ভেসে উঠবে। আবার পানি নেমে গেলে বাড়িটি যথাস্থানে বসে যাবে।

পাইলট প্রকল্প হিসেবে রানীগ্রামে দুই মাসে ৮ শতক জায়গায় প্রথম এ বাড়ি তৈরিতে প্রায় ১৫ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে। তবে পরবর্তী বাড়ি নির্মাণে ব্যয় আরো কমবে।