বিশ্বকাপ দলে স্মিথ-ওয়ার্নার



সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বিশ্বকাপ দলে জায়গা পেলেন স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। ১৫ সদস্যের অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ দলে সুযোগ মিলেছে বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগে নিষিদ্ধ হওয়া দুই ক্রিকেটারের।

ডেভিড ওয়ার্নার আর স্টিভেন স্মিথ যেহেতু দলে ফিরছেন, টপ অর্ডারের একজন বড় পড়বে, অনুমিত ছিল। এক্ষেত্রে বলির পাঁঠা হিসেবে বেছে নেওয়া হলো পিটার হ্যান্ডসকম্বকে।

১৩ ম্যাচে একটি সেঞ্চুরি ও তিনটি হাফ সেঞ্চুরির সাহায্যে প্রায় ৪৪ গড় আর ৯৯ স্ট্রাইক রেট নিয়ে ৫৬৭ রান করা হ্যান্ডসকম্ব বাদ পড়েছেন ওয়ার্নার-স্মিথকে জায়গা করে দিতে।

হ্যান্ডসকম্ব ছাড়াও বাদ পড়েছেন পেসার জশ হ্যাজলউড। জানুয়ারি থেকে পিঠের চোট ভোগাচ্ছে হ্যাজলউডকে, তাই প্রত্যাশিতইভাবেই দলে নেই তিনি। এর ফলে।সুযোগ মিলেছে মিচেল স্টার্কের।

স্টার্কসহ দলের পেস আক্রমণ সামলাবেন ঝাই রিচার্ডসন, প্যাট কামিন্স, জেসন বেহেরেনডর্ফ ও নাথান কোল্টার-নাইলকে। দলে নেওয়া হয়নি ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ঝড় তোলা ব্যাটসম্যান অ্যাশটন টার্নারকেও। একমাত্র উইকেটরক্ষক হিসেবে নেওয়া হয়েছে অ্যালেক্স ক্যারিকে।

স্মিথ ফিরলেও ডলারের অধিনায়ক হিসেবে থাকবেন অ্যারন ফিঞ্চ। ১ জুন আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া।

১৫ সদস্যের অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ দল :

অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, উসমান খাজা, শন মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টোইনিস, অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেটরক্ষক), অ্যাডাম জাম্পা, নাথান লায়ন, জেসন বেহেরেনডর্ফ, নাথান কোল্টার-নাইল, প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, ঝাই রিচার্ডসন।