ওষুধ খেতে যে নিয়মগুলো জানা বাধ্যতামূলক



সাধারনত আমরা সামান্য কোন অসুস্থ বোধ করলেই মেডিকেল শপগুলোতে গিয়ে ওষুধ নিয়ে খেতে থাকি। যা আসলে আমাদের জন্য মোটেও ভাল কিছু বয়ে নিয়ে আসে না। এ থেকে হতে পারে হিতে বিপরীত। তাই আমাদের ওষুধ খেতে হলে বুঝেশুনে খাওয়াটাই উত্তম।

তাই ওষুধ খাওয়ার আগে যে বিষয়গুলো জানা অত্যন্ত জরুরী, স্বাস্থ্যবিষয়ক প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অবলম্বনে সেই বিষয়ে জানানো হল।

ওষুধের কাজ কি:

চিকিৎসকের লিখে দেওয়া ওষুধ সাধারনত সবাই কোন রকমের প্রশ্ন ছাড়াই খায়। তবে কী ওষুধ? কি জন্য খাওয়া হচ্ছে,  এ ব্যাপারে বিস্তারিত জেনে নেওয়া দোষের কিছু নয়। তাই জেনে নিতে পারেন তার দেওয়া ওষুধগুলো কীভাবে সুস্থ করবে।

কোন ধরনের সমস্যা হতে পারে কি না:

চিকিৎসকের দেয়া ঔষধ সম্পর্কে তাকে প্রশ্ন করতে পারেন। যে এই ওষুধের কোন ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কি না। যাতে করে সমস্যা দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে ফিরে যেতে পারেন।

ওষুধ খাওয়া প্রতিনিয়ত চালিয়ে যেতে না পারলে:

কিছু ওষুধ সাময়িক বন্ধ করে দিলে সমস্যা হয় না, আবার কিছু ওষুধ রোগ পুরোপুরি নিরাময় হয়ে গেলেও পুরো কোর্স পূর্ণ করতে হয়। কিছু ওষুধ আবার বিশেষ সমস্যা হলেই খেতে হয়। এ সম্পর্কে চিকিৎসকের কাছ থেকে জেনে নিন।

ওষুধ খাওয়ার পদ্ধতি:

চিকিৎসক ওষুধ লিখে দেয়ার পর তার কাছ থেকে জেনে নিতে পারেন ওষুধ খাওয়ার নিয়মাবলী সমন্ধে। এছাড়াও, অনেক সময় চিকিৎসকরা  বিশেষ কিছু ওষুধ খাওয়ার পরামর্শ দেন, যাতে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া, হজমের সমস্যা, হতে পারে।  এ বিষয়েও চিকিৎসককে প্রশ্ন করতে হবে।

ঔষধ খাওয়ার সময়সীমা:

চিকিৎসকরা বলে দেন ওষুধ খাওয়ার সময়কাল। তবে জেনে নিতে হবে ওষুধের প্রভাব পড়তে কতদিন সময় লাগতে পারে। এতে রোগ নিরাময়ের পার্থক্য নিজেই বুঝা সম্ভব হয় অনেক সময়।