সমুদ্রের নিচে বিমানের ধ্বংসাবশেষ!



অতলান্তিক মহাসাগরের পথে পাড়ি দেওয়া প্রথম মহিলা বিমানচালক এমেলিয়া ইয়ারহার্ট। ১৯৩২ সালে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে তাঁর নাম। মাত্র ৩৯ বছর বয়সে বিমান-সহ আচমকা উধাও হয়ে যান তিনি।

কোথায় গেলেন এমেলিয়া ইয়ারহার্ট? গত ৮০ বছর ধরে তুমুল জনপ্রিয় এই বিমানচালকের খোঁজ চলছে।

সম্প্রতি এই রহস্যের জট খুলছে। দাবি করা হয়, প্রশান্ত মহাসাগরের পশ্চিম প্রান্তে নিকুমারোরো দ্বীপে তাঁর কঙ্কাল মিলেছে। এমেলিয়ার ব্যবহৃত প্রসাধনীরও হদিস মিলেছে বলে দাবি করা হয়। সেই দাবি যখন অনেকে মেনে নিতে শুরু করেছেন, তখনই এক বিমানের ধ্বংসাবশেষ ঘিরে উঠে এল নতুন প্রশ্ন।

পাপুয়া নিউ গিনির কাছে সমুদ্রে খোঁজ মেলে একটি জাহাজের ধ্বংসাবশেষের। প্রথমে জাহাজ বলে মনে হলেও বিশেষজ্ঞরা এখন মোটামুটি নিশ্চিত, এটি একটি বিমানের ধ্বংসাবশেষ।

ধ্বংসাবশেষটি ১৯৩৭ সালে হারিয়ে যাওয়া এমেলিয়ার বিমান হতে পারে বলেও সন্দেহ করছেন অনেকে।

১৯৩৭ সালে এমেলিয়া ইয়ারহার্ট প্রশান্ত মহাসাগর থেকে হাউল্যান্ড যাওয়ার পথে নিরুদ্দেশ হয়ে যান। ৮০ বছর আগের সেই উড়োজাহাজের ধ্বংসাবশেষকেই প্রথমে জাহাজের ধ্বংসাবশেষ ভেবেছিলেন উদ্ধারকারীরা।

এই ধ্বংসাবশেষের নিশ্চিতকরণের মধ্য দিয়েই মিলতে পারে এমেলিয়া ইয়ারহার্টের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা।