ট্রায়াল অসমাপ্ত রেখেই ভ্যাকসিন দিচ্ছে চীন!


bdnews24 bangla newspaper, bangladesh news 24, bangla newspaper prothom alo, bd news live, indian bangla newspaper, bd news live today, bbc bangla news, bangla breaking news 24, prosenjit bangla movie, jeeter bangla movie, songsar bangla movie, bengali full movie, bengali movies 2019, messi vs ronaldo, lionel messi stats, messi goals, messi net worth, messi height


বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন এনেছে রাশিয়া। এমন দাবির পর হঠাৎই জানা গেছে অনেকদিন আগে থেকেই ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু করেছে চীন।

জানা যায়, জুলাই মাস থেকেই তারা বেশ কিছু লোকজনকে ভ্যাকসিন দিয়েছে বলে জানা গেছে। এমনকি যে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে তার ট্রায়াল এখনও শেষ হয়নি। তা সত্বেও সেই ভ্যাকসিন দেয়া হচ্ছে। চীনের এই সিদ্ধান্তকে খুব একটা ভালো চোখে দেখছে না আমেরিকা।

চীনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশনের সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি সেন্টারের প্রধান ঝেং ঝংউই গত রবিবার চীনের সংবাদ মাধ্যম সিসিটিভিকে জানিয়েছে, স্বাস্থ্যকর্মীসহ জরুরি ক্ষেত্রে কর্মরত অনেককেই এই ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে। ‘এমার্জেন্সি ইউজ’ বা জরুরি ভিত্তিতে সেই ভ্যাকসিন ব্যবহার করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

ঝেং জানান, অননুমোদিত ভ্যাকসিন ব্যবহার করা হচ্ছে কিছু কিছু ক্ষেত্রে। এদিকে, চীন ভ্যাকসিন নিয়ে কূটনীতিতে নেমেছে। যেসব দেশে তারা আধিপত্য বিস্তার করতে চায়, সেখানে তারা আগে ভ্যাকসিন পৌঁছে দিতে চাইছে।

পাকিস্তানের এই প্রথমবার কোনও করোনা ভ্যাকসিনের ফেজ থ্রি ট্রায়াল চালানো হচ্ছে। CanSinoBio নামে ওই সংস্থা ইতিমধ্যেই চীন, রাশিয়া, আর্জেন্টিনায় ট্রায়াল চালিয়েছে। কিছু দিনের মধ্যেই সৌদি আরবে এই ট্রায়াল চালানো হবে বলে জানা গেছে।

গত মাসেই চীনের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের সঙ্গেই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। করাচির ইন্দাস হসপিটালে এই ট্রায়াল চালানো হবে। ইতিমধ্যে করাচির বিভিন্ন জায়গা থেকে অন্তত ২০০ জন ভলান্টিয়ার এই খেলায় অংশগ্রহণের জন্য রেজিস্টার করেছেন।

জানা গেছে, ভলান্টিয়ারদের তালিকায় ছেলে এবং মেয়ে উভয়ের রয়েছে। ৫৬ দিন ধরে চলবে এই ট্রায়াল’। ৫৬ দিনের মধ্যে প্রত্যেকটি তিনটি করে ইনজেকশন দেওয়া হবে, যাতে থাকবে ইন্যাক্টিভেটেড ভাইরাস।

পাকিস্তানের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় তিন লাখের কাছাকাছি। মঙ্গলবারের হিসাব অনুযায়ী ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৬১৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের।

বিশ্বজুড়ে করোনা ভ্যাকসিন গবেষণা হচ্ছে ১৭০টি জায়গায়। চীনে বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে তৃতীয় পর্যায় বা ফেজ থ্রি ভ্যাকসিন পরীক্ষা চলছে। সবগুলিই ট্র্যাক করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।