৭০ টাকায় বাজারে মিলছে করোনার ওষুধ ‘মলনুপিরাভির’




দেশের বাজার পাওয়া যাচ্ছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে অ্যান্টিভাইরাল ওরাল পিল‘মলনুপিরাভির’।

এ ওষুধ বাজারে এনেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় তিন ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস ও স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস। প্রতিটি ওষুধের বাজার মূল্য ধরা হয়েছে ৭০ টাকা।

তিনটি প্রতিষ্ঠানকেই মলনুপিরাভির উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের অনুমোদন এরই মধ্যে দিয়েছে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।

অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে ঔষধটির জরুরি ব্যবহার ও উৎপাদনের অনুমোদন দেয়ার কথা জানান। তিনি বলেন, “কোভিডের চিকিৎসায় জরুরি ব্যবহারের জন্য অ্যান্টি-ভাইরাল হিসেবে মুখে খাওয়ার ঔষধ মলনুপিরাভিরকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে।”

যুক্তরাজ্য করোনা চিকিৎসায় মলনুপিরাভির ব্যবহারের অনুমোদন দেওয়ার পর মোট ১০টি প্রতিষ্ঠান এই ঔষধটি প্রস্তুত ও বাজারজাত করার আবেদন করেছিল।

বেক্সিমকো, স্কয়ার ও এসকেএফকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে, বাকী সাতটি প্রতিষ্ঠানও অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানায় ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।

একসময় সাধারণ ফ্লুর চিকিৎসায় ব্যবহার করা হতো মলনুপিরাভির। যুক্তরাজ্যসহ কয়েকটি দেশ করোনা চিকিৎসায় এই ওষুধের পরীক্ষামূলক প্রয়োগে সফলতা পেয়েছে। এই ক্যাপসুল রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যুঝুঁকি অর্ধেক কমিয়ে দেয়।

যেসব ব্যক্তি দুর্বল এবং যাঁদের রোগ প্রতিরোধক্ষমতা কম, তাঁদের চিকিৎসায় এই ওষুধ বেশি কার্যকর।

মূলত মলনুপিরাভির করোনা ভাইরাসের জেনেটিক কোডে একটি ত্রুটি তৈরি করে। এর ফলে ভাইরাসটি বিভাজিত হতে বাধা প্রাপ্ত হয়। এতে করে দেহে ভাইরাসের পরিমাণ কমে যায় এবং এর কারণেই রোগের তীব্রতাও কমে যায়।