অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ স্টোকস




ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের সহ অধিনায়ক বেন স্টোকসকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। সেই সাথে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের ওপেনিং ব্যাটসম্যান এলেক্স হেলসকেও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
গত ২৫শে সেপ্টেম্বর ব্রিস্টল পুলিশ কর্তৃক গ্রেফতার হন বর্তমান সময়ের অন্যতম অলরাউন্ডার স্টোকস। তবে কি কারনে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছিল তার সুনির্দিষ্ট কারন সে সময় জানা যায় নি। সে ঘটনার পরপরই স্টোকস ও সেই সাথে হেলসকে সাময়িক নিষিদ্ধ করেছিল ইসিবি। পরেরদিন উইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচে রাখা হয়নি দুইজনকে।
এ ঘটনার দুইদিন পর বেরিয়ে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা যায়, সেদিন এক পথচারীর সাথে মারপিট করার সুবাদে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, ‘এক মিনিটে প্রায় ১৫ বার স্টোকস লোকটির মুখে ঘুসি মারে।’
স্টোকসকে আটক করার পর জনপ্রিয় দৈনিক ডেইলি সানে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়, যেখানে সংযুক্ত করা ভিডিওগ্রাফে দেখা যায় স্টোকসের মারপিটের দৃশ্য। ঐ সময় স্টোকসের সাথে ছিলেন অ্যালেক্স হেলসও। এই ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পরপরই তাদের অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করে ইসিবি। ডেইলি সানে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায়, দুই জন লোককে সজোরে ঘুষি হাঁকিয়েছেন স্টোকস। এ সময় অন্য কেউ বলে উঠেন, ‘যথেষ্ট হয়েছে, স্টোকস।’
এক বিবৃতিতে ইসিবি জানান, অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যতক্ষন না ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত হচ্ছে, ইংল্যান্ড দলে আপাতত তাদের জায়গা হচ্ছে না। এমনকি তাদের বেতনও সাময়িক বন্ধ রাখার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।
সামনেই ইংল্যান্ডের অ্যাশেজ সিরিজ। গুরুত্বপূর্ণ এই সিরিজের জন্য দলের প্রধান সদস্য ছিল স্টোকস ও হেলস। তবে এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় জাতীয় দলে তাদের অবস্থান নড়বড়ে হয়ে গেছে।
সূত্র : ক্রিকবাজ