প্রিয়াংকার উপর চটেছেন ভারতীয়রা



বলিউডের পাশাপাশি হলিউডেও সমানে অভিনয় করছেন প্রিয়াংকা চোপড়া। নিজের কাজের পরিধি বাড়িতে তুলতে হাত দিয়েছেন প্রযোজনা ও পরিচালনার কাজেও। তাঁর অসংখ্য ভক্তের কাছে ‘অসম্ভব ট্যালেন্টেড’ বলে পরিচিত এই ‘দেশি গার্ল’।
তবে এবার বেশ ভাল ভাবেই ফেসে গিয়েছেন এই অভিনেত্রী। কারণ তার ভক্তরাই তাকে উল্লেখ করছেন একজন ‘বিশ্বাসঘাতক’ হিসেবে।
প্রিয়াংকা অভিনীত গোয়েন্দা কাহিনীর উপর ভিত্তি করে তৈরি থ্রিলার কোয়ান্টিকোর সাম্প্রতিক একটি পর্বে দেখা যায় তিনি অ্যালেক্স কাশ্মীরের উপর অনুষ্ঠেয় এক সম্মেলনের আগে, কয়েকজন হিন্দু জাতীয়তাবাদীর একটি হামলা পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দিয়েছেন। ব্লাড অফ রোমিও’ বা ‘রোমিওর রক্ত’ নামের এই পর্বটি প্রচারিত হয় গত ১লা জুন। পর্বটিতে দেখা যায়, এই পরিকল্পনা করা হয়েছিল কাশ্মীর সম্মেলনের আগে এবং অ্যালেক্স আবিষ্কার করেন যে আসলে পাকিস্তানিরা নয়, বরং কয়েকজন হিন্দু জাতীয়তাবাদী মিলে এই হামলার পরিকল্পনা করেছিলেন। এবং হামলার জন্যে পাকিস্তানিদের দায়ী করার জন্যে তারা আক্রমণকারীরা একটি নাটকও সাজিয়েছিল।
এই কাহিনীতে ক্ষুব্ধ হয়েছেন তার বহু ভারতীয় ভক্ত এবং তাকে অনলাইনে আক্রমণ করেছেন। তাকে তারা উল্লেখ করছেন একজন ‘বিশ্বাসঘাতক’ হিসেবে।
কোয়ান্টিকোর এই পর্বটি প্রচারিত হওয়ার পর অনলাইনে প্রিয়াংকা চোপড়াকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করা হয়। অনেকে তাকে উল্লেখ করেন ভারতের জন্যে ‘অপমান’, ‘লজ্জা’ হিসেবে আবার অনেকেই অভিযোগ করেন যে সিরিজের এই পর্বটিতে হিন্দুদের উপর শুধু নয়, এর মাধ্যমে ভারতের উপরেও আক্রমণ করা হয়েছে।
প্রতারক, দেশদ্রোহী উল্লেখ করে তাকে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেওয়ার কথাও বলেছেন কেউ কেউ । টুইটারে একজন লিখেছেন, “প্রিয়াংকা চোপড়ার পাসপোর্ট বাতিল করা হোক। তাকে যেন ভারতে ঢুকতে দেওয়া না হয়…আপনি হলিউডে থাকুন এবং পাকিস্তানিদের জুতা চাটতে থাকুন।”
আবার অনেকে প্রিয়াংকা চোপড়ার পক্ষেও বলেছেন। তাদের অনেকে বলেছেন, এটা শুধু টেলিভিশনের একটি নাটক যার সাথে বাস্তবের কোন সম্পর্ক নেই। “এরকম একটি কাল্পনিক কাহিনীর জন্যে আপনি কেন ক্ষমা চাইছেন?” প্রশ্ন করেছেন একজন টুইটার ব্যবহারকারী।
তারা বলছে, “আপনি কাহিনীটি পড়েছেন, রিহার্স করেছেন তারপর বহুদিন ধরে এটাতে অভিনয় করেছেন। তারপরেও এরকম ভুল হয় কীভাবে?”
অবশ্য এ ঘটনার পরে ক্ষোভের সৃষ্টি হলে প্রিয়াংকা তার ভক্তদের কাছে ক্ষমা চেয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তবে এতেও ক্ষোভ কমেনি তার প্রতি।