ভারতের হয়ে অস্কারে যাচ্ছে নকল সিনেমা!




বিশ্ব চলচ্চিত্রের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরষ্কার অস্কারের জন্য ভারত থেকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে অভিনেতা রাজকুমার রাও অভিনীত ‘নিওটন’ সিনেমাটি। তবে এই সিনেমাটির বিরুদ্ধে নকলের অভিযোগ উঠেছে। জনপ্রিয় ইরানি চলচ্চিত্র ‘সিক্রেট ব্যালট’ এর সাথে অমিত মাশুরকারের ‘নিওটন’ সিনেমাটির চিত্রনাট্য ও মূল বিষয় অনেকখানিই মিলে গেছে বলে দাবি করছেন অনেকে।
অমিত মাশুরকার এর ‘নিউটন’ এ মূলচরিত্র রাজকুমারকে ছত্রিশগড়ে নক্সাল অধ্যুষিত এলাকায় হেলিকপ্টারে পাঠানো হয়। সেখানেই তার সাথে নিরাপত্তাকর্মী আত্মা সিং এর সাথে দেখা হয়। আত্মা সিং পোলিং অফিসারকে বলেন যে- সে এই এলাকা খুব ভালো করে চেনে তাই একমাত্র সে-ই সিদ্ধান্ত নিবে আদৌ এই এলাকায় সেদিন ভোট গ্রহণ হবে কিনা। এদিকে নিউটন তাকে মনে করিয়ে দেন, তিনিই এখানে দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি এবং এই সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা শুধু তারই আছে।
অন্যদিকে বাবাক পিয়ামির ‘সিক্রেট ব্যালট’ এ মূল চরিত্র একজন নারী, তাকেও ভোটগ্রহণের অঞ্চলে প্লেনে পাঠানো হয়। এখানেও নিরাপত্তাকর্মী নারী পোলিং অফিসারকে কোনো সহযোগিতা করেন না। এই সিনেমাতেও এই নারী পোলিং অফিসার বলেন, ‘শুনুন জনাব আমার কাছে অর্ডার আছে। আপনি যদি এই অর্ডার না পালন না করেন তবে আপনাকে সারাজীবনই সৈন্যই থাকতে হবে।’
দুটি সিনেমাতেই ভোটগ্রহণের একটি দিনের গল্প বলা হয়েছে, যেখানে মূলচরিত্র একজন সৎ পোলিং অফিসারের। এবং যার কাজ যেকোন মূল্যে ভোটের কাজ সম্পন্ন করা। দুইটি সিনেমাতেই একজন সৈন্য আছেন যিনি প্রতি পদে পদে এই পোলিং অফিসারকে ভোট সম্পাদনার কাজে বাধা প্রদান করেন। আলোচ্য দুটি সিনেমাতেই সিকিউরিটি অফিসার অনিচ্ছাপূর্বক উর্ধ্বতন কর্মকর্তার নির্দেশ পালন করেন। এমনকি দুইটি সিনেমাতেই মূল চরিত্রদুটিকে ব্যালট বক্স বহন করতে দেখা যায়।
অবশ্য দুইটি গল্পেরই একই আদল হলেও কিছু জায়গায় ভারতের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ ব্যতিক্রম দৃশ্য রয়েছে, যা খুবই সামান্য। তবে সিনেমাটির বিরুদ্ধে ওঠা নকলের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সিনেমাটির পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার অমিত মাশুরকার।
এ বিষয়ে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভিকে বলেন, ‘আমার মনে পড়ে আমার এক বন্ধু আমাকে ‘সিক্রেট ব্যালট’ সিনেমাটির কথা বলেছিল। ‘সিক্রেট ব্যালট’ সিনেমাটি ইউটিউবে থাকার কারণে আমি সেটা দেখেছি। আমার কাছে মনে হয়েছে দুইটি সিনেমার ভেতর পার্থক্য আছে। এবং আরেকটি পার্থক্যের বিষয় হচ্ছে, ইরানি সিনেমাটিতে কিছুটা রোমান্টিক ব্যাপার স্যাপার আছে, কিন্তু ‘নিউটন’ সিনেমাটিতে এমন কিছু নেই।’