রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে ১৯ সেপ্টেম্বর ভাষণ দেবেন সু চি




মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দমন পীড়ন অভিযানে দেশটির রাখাইন রাজ্যে চলমান পরিস্থিতি নিয়ে আগামী সপ্তাহে ভাষণ দেবেন দেশটির ক্ষমতাসীন দলের নেত্রী অং সান সু চি। তাঁর ভাষণ টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হবে। রাখাইনে চলমান সহিংসতা শুরু হওয়ার পর এই প্রথম এ বিষয়ে ভাষণ দেবেন তিনি।
মিয়ানমার সরকারের মুখপাত্র জ হতয়ের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি এ কথা জানায়।
গতকাল বুধবার রাতে এক সংবাদ সম্মেলনে মুখপাত্র জ হতয় বলেন, ‘অং সান সু চি আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর ‘জাতীয় ঐক্য ও শান্তির আহ্বান’ জানিয়ে ভাষণ দেবেন। দেশে চলমান সংকট মোকাবিলার জন্যই সু চি আগামী সপ্তাহে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিচ্ছেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশেই তাঁকে বেশি প্রয়োজন।’
রাখাইনের কয়েকটি পুলিশ ফাঁড়ি ও তল্লাশিচৌকিতে গত ২৫ আগস্ট রাতে সন্ত্রাসী হামলা হয়। এর জেরে সেখানে নতুন করে সহিংস সেনা অভিযান শুরু হয়। মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী নিরস্ত্র রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ-শিশুদের ওপর নির্যাতন ও হত্যাযজ্ঞ চালাতে থাকে। জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআরের তথ্য অনুযায়ী, মিয়ানমার থেকে ২৫ আগস্টের পর তিন লাখ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে।