চা বিক্রি করে কোটিপতি!



বিভিন্ন সিনেমায় প্রায়ই দেখা যায় ঠেলাগাড়ি বা ট্যাক্সি চালিয়ে নায়ক কোটিপতি হয়ে যাচ্ছে। তবে বাস্তবে এরকম গল্প খুবই কম। কিন্তু ভারতের পুনের এক চা বিক্রেতা আপনার এই ধারণাকে পরিবর্তন করে দেবে।
চা বিক্রি করে যে কোটিপতি হওয়া যায় সেটা প্রমাণ করে দেখালেন পুণের এক চা বিক্রেতা। তাঁর মাসিক আয় কত জানেন? ১২ লক্ষ টাকা। হ্যাঁ, অবিশ্বাস্য হলেও এটাই সত্যি।
পুণের ওই চা বিক্রেতার নাম নবন্ত ইউলে। পুণেতে প্রথমে একটি দোকান খুলে ব্যবসা শুরু করেন। সুস্বাদু চায়ের জন্য ধীরে ধীরে শহরে বেশ পরিচিতি পান তিনি। এর পর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি নবন্তকে। চায়ের ব্যবসার পরিধিও বাড়তে থাকে। ইউলে টি হাউস নামে পুণেতে এখন তাঁর তিনটি দোকান চলে। শুধু তাই নয়, তাঁর দোকানের কর্মচারীর সংখ্যাও কম নয়। ১২ জন কাজ করেন সেখানে।
২০১১-তে চায়ের ব্যবসার কথা মাথায় আসে নবন্তের। চায়ের প্রতি দেশবাসীর যে ভালবাসা, সেটাকে একটা ব্র্যান্ডে পরিণত করার পরিকল্পনা মাথায় আসে তাঁর। তার পরই এই ব্যবসায় নেমে পড়া। নবন্ত জানান, পুণেতে তেমন কোনও নামকরা চায়ের দোকান ছিল না, যেখানে গেলে সুস্বাদু চা পাওয়া যায়। তাই শহরবাসীকে সেই স্বাদ জোগাতেই ব্যবসার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ইউলে।
পুণের এই চা বিক্রেতার বলেন, “চায়ের ব্যবসাও একটা ভাল রোজগারের উপায়। অনেক ভারতীয়ই এই ব্যবসা করছেন। আর এই ব্যবসা দিনে দিনে বাড়ছে।” আর এতে যে তিনি খুশি সেটাও জানান নবন্ত। তবে পুণের চৌহদ্দিতে আটকে থাকতে চান না তিনি। তাঁর এই ব্র্যান্ডকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়াই এখন লক্ষ্য তাঁর।